কার্টুন - বিপ্রতীক২৪.কম।
এইমাত্র পাওয়া সারা প্রান্তর

সাতক্ষীরায় সড়কের বেহাল দশা; জনদুর্ভোগ চরমে।

সাতক্ষীরা জেলার কলারোয়া উপজেলা থেকে সরসকাটি পর্যন্ত ৯ কিলোমিটার, অত্র এলাকার খুবই গুরুত্বপুর্ন একটি সড়ক।  গ্রাম থেকে ধান, চাল, মাছ, শাক-সবজি ও নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস এই পথে কলারোয়ায় আসে। তেমনি পার্শ্ববর্তি তালা উপজেলা ও যশোর জেলার কেশবপুর উপজেলায় যাবার রুট হওয়ায় প্রতিদিন এই রাস্তায় সহস্র মানুষ তথা যানবাহন চলাচল করে।


কিন্তু সড়কটির বেহাল দশা এলাকার জনদুর্ভোগের প্রধান কারন হয়ে দাড়িয়েছে। বেশিরভাগ স্থানে বিটুমিনের প্রলেপ উঠে গেছে, রাস্তার মাঝে সৃষ্টি হয়েছে বড়বড় গর্ত।  যার ফলে প্রায়ই ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা, অপচয় হচ্ছে শ্রম এবং সময়ের। এই সড়কের পাশে শেখ মুজিবর রহমান কলেজ, বামনখালি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বসন্তপুর দাখিল মাদ্রাসা ও কয়েকটি প্রায়মারি স্কুল থাকায় ছাত্রছাত্রীরা স্কুলে আসা-যাওয়ায় চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছে।
রাজু বিশ্বাস নামের এক ‘মহেন্দ্র থ্রি হুইলার’ চালক আক্ষেপ করে বলেন “১৫ মিনিটির পথ যাতি এক ঘন্টা লাগে। তাই ভাবতিছি, মহেন্দ্র বেইচি দিয়ে উড়োজাহাজ কেনবো”। এমনই ক্ষোভ প্রকাশ করে যাতায়াতের দুর্ভোগের কথা প্রকাশ করেন যাত্রীরাও। গতকাল বৃষ্টির পর দেখা যায় সড়কের বিভিন্ন স্থানে পানি জমে আছে এবং মানুষ ও যানবাহন চলাচলের প্রায় অযোগ্য হয়ে পড়েছে।
সংশ্লিষ্ঠ বিষয়ে জয়নগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শামসুদ্দিন আল মাসুদ বাবু বলেন “রাস্তাটি সংস্কার করা অত্যান্ত জরুরী হয়ে পড়েছে। তা নাহলে আসন্ন বর্ষা মৌসুমে জয়নগর যুগিখালি ইউনিয়নের সঙ্গে কলারোয়া উপজেলার সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবে।” এছাড়া আলাপকালে এলাকার সর্বস্তরের জনগন রাস্তাটি সংস্কারের জন্য সরকারের যথাযথ কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।

  • সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : রুদ্র রাজন।
  • সারা প্রান্তর, বিপ্রতীক২৪.কম।
Print Friendly
test