ছবি - বিপ্রতীক২৪.কম।
এইমাত্র পাওয়া সারা প্রান্তর

সাতক্ষীরায় ধর্ষনের ঘটনা ধামাচাপা দেবার চেষ্টা

Print Friendly

সাতক্ষীরার তালা উপজেলার হরিহরনগর গ্রামে দেবকি দাস নামে এক গৃহবধু গনধর্ষনের স্বীকার হয়।  ঘটনাটি ঘটে ১০ মার্চ শুক্রবার বেলা আনুঃ ২ টার দিকে। ধর্ষিতার স্বামীর নাম অসিত দাস।


অভিযোগ পেয়ে ধর্ষিতা দেবকির বাড়ী গিয়ে তার কাছে ঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, শুক্রবার দুপুরে গ্রামের অদূরে সিংহের চক নামক বিলে ধানের ক্ষেতে মজুরি দিতে যান তিনি।  সেখান থেকে কাজ শেষে ফেরার পথে মুড়াগাছা গ্রামের ইমান আলী শেখের পূত্র বিল্লাল হোসেন (৩৫) , হরিহরনগর গ্রামের মোঃ রফি গোলদার (৫০) এবং অজ্ঞাত আরো একজন তার গলায় ধারালো অস্ত্র ধরে ইরিধানের সেঁচ কাজের স্যালো মেশিন ঘরে নিয়ে গিয়ে পালাক্রর্মে ধর্ষন করে।  এসময় দেবকি চিত্কার দেয়ার চেষ্টা করলে ধর্ষকরা তার গলায় ধারালো অস্ত্র ধরে হত্যার হুমকি দেয়।
ঘটনা চেঁপে রেখেছেন কেন , এমন প্রশ্নের জবাবে ধর্ষিতার শাশুড়ী স্বরসতি দাস বলেন, ঘটনা যাতে প্রকাশ না করি – সেজন্য বিভিন্ন লোক চাপ সৃষ্টি করছে।  আমরা গরীব অসহায় মানুষ, কোথায় যাব, কি করবো – কিছু বুঝে উঠতে পারছি না। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য শেখ জাহিদুরের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি ঘটনাটি গতকালই (মঙ্গলবার) জেনেছি।  ঘটনাটি অত্র ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাহেবও জানেন এবং তিনি এ ঘটনার ব্যাপারে সালিশে বসতে চেয়েছেন।
এদিকে খেশরা ইউনিয়ন যুবলীগের আহব্বায়ক ফারুখ হোসেন পিল্টু অভিযোগ করে বলেছেন , বিষয়টি একটি স্বার্থান্বেষী মহল রহস্যজনক কারনে ধামা চাপা দেয়ার চেষ্টা করছে। ধর্ষিতা অন্তজ শ্রেনীর(ঋষি সম্প্রদায়) মানুষ বলে বিচারের বানী আজ নিভৃতে কাঁদে। ঘটনার ব্যাপারে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ধর্ষিতার পরিবার ।

  • সাতক্ষীরা প্রতিনিধি – রুদ্র রাজন।
  • সারা প্রান্তর, বিপ্রতীক২৪.কম।
Powered by WP Review Powered by WP Review
test